পরিবার মূকাভিনয়কে কিভাবে নিয়েছিল?



মূকাভিনয়ের প্রতিবন্ধকতা অনেক। এখানে সফলতা অনিশ্চিত। স্বভাবতই লোকমানের পরিবার চাইত তিনি যেন মূকাভিনয় বাদ দিয়ে সম্মানজনক কোন চাকুরী করেন।

কিন্তু, লোকমান সফলতার সেই বন্ধুর পথ ইতোমধ্যে অনেকটাই অতিক্রম করে এসেছেন। এখন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের যেকোন অনুষ্ঠান লোকমানের মূকাভিনয় ছাড়া জমেই না! এছাড়াও প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়, বাংলা একাডেমি, ব্রিটিশ কাউন্সিলসহ গুরুত্বপূর্ণ বিভিন্ন প্লাটফর্মে মূকাভিনয় প্রদর্শনের মাধ্যমে লোকমান এগিয়ে যাচ্ছেন নিজস্ব লক্ষ্যে পত্রিকার পাতায় সন্তানের ছবি দেখে মা-বাবাও আশ্বস্ত হয়েছেন, চওড়া হয়েছে মুখের হাসি।

ঢাবির লোকমান: মূকাভিনয় শিল্পের ফেরিওয়ালা!!

কিশোর লোকমানের প্রথম মূকাভিনয় মুগ্ধতা


পথচলাটা মোটেও সহজ ছিল না


‘ঢাকা ইউনিভার্সিটি মাইম অ্যাকশন’র স্বপ্নযাত্রা


পরিবার মূকাভিনয়কে কিভাবে নিয়েছিল?


মূকাভিনয়টাই স্বপ্ন, কেন?


লোকমানের প্রতিবাদের ভাষাও মূকাভিনয়!!


ক্যাম্পাস প্রতিনিধি


More news