হাসিনা মুক্তাঃ আটপৌরে এক নারীর সফল উদ্যোক্তা হওয়া



মা সেলাই মেশিনে সবার জামা বানিয়ে দিত। তা দেখে বাসার ছোট্ট মেয়েটি পুতুলের জামা বানাত। শুধু কি তাই, ফেলে দেওয়া ডিমের খোসায় ইচ্ছে মতো আঁকিবুঁকি করতোসাজিয়ে রাখত পড়ার টেবিলেস্কুলে গার্হস্থ্য অর্থনীতির টিচার তার সেলাইয়ের উপর অসাধারণ দক্ষতা দেখে একদিন চুপিচুপি ডেকে নিয়ে বললেন, “তুমি একদিন অনেক বড় হবে”।

হাসিনা মুক্তার গল্পটা কিন্তু ছিলো সাধারণ আটপৌরে এক নারীর গল্প। ঘর সামলাতে সামলাতেই একদিন বিশ্ব জয় করে ফেললেন এই নারী! আচ্ছা, শুধু কি নিজেই স্বাবলম্বী হয়েছেন? না, প্রায় হাজার খানেকের উপর মেয়েকে প্রশিক্ষণ দিয়ে স্বাবলম্বী বানিয়েছেন তিনি।

নারী উদ্যোক্তা হবে! এই সোসাইটিতে এখনো ব্যাপারটা একটু প্রশ্নবিদ্ধ। তাই খুব সহজেই অনুমান করা যায়, হাসিনা মুক্তারের এই জায়গাতে পৌঁছানোটা মোটেই সহজ ছিলো না। কি করে পার হলেন সেই সময়ের সব দুর্গম-গিরি-কান্তার! তা নিয়েই আমাদের আজকের আয়োজন!

এইচএসসি’র পরপরেই বিয়ে! তারপরেও থেমে থাকেননি!


উদ্যোক্তার রিস্কি জীবনটাই বেছে নিলেন ক্যারিয়ার হিসেবে


বাধা পেরিয়ে সাফল্যের এক জীবন!


নিজস্ব প্রতিবেদক, ছবিঃ হাসিনা মুক্তার ফেসবুক টাইমলাইন

More news