বুয়েটে প্রথমবারের মতো ‘উইমেন ইঞ্জিনিয়ারস কংগ্রেস’



নারী ক্ষমতায়নের দিকে ক্রমেই এগিয়ে যাচ্ছে বাংলাদেশ। অন্যসব সেক্টরের মত শিক্ষাক্ষেত্রে, বিশেষ করে ইঞ্জিনিয়ারিং পড়াশুনায় নারীদের সাম্প্রতিক অগ্রগতি প্রণিধানযোগ্য। এরই ধারাবাহিকতায় BUET Career Club(BCC) এর আয়োজনে বাংলাদেশে প্রথমবারের মত ‘Women Engineers’ Congress 2016’ অনুষ্ঠিত হয়ে গেলো গত ১৪ ও ১৫ নভেম্বর।

প্রোগ্রাম ইঞ্জিনিয়ারিং ডিসিপ্লিনের নারীদের জন্য হলেও এটা ভবিষ্যতে ইঞ্জিনিয়ার হবার ইচ্ছা এমনসব ছাত্রীদের জন্যও উন্মুক্ত ছিলো আর অংশগ্রহণকারীদের গার্ডিয়ানদের জন্যও ছিলো সমানভাবে উন্মুক্ত।

এই প্রোগ্রামের মুখ্য উদ্দেশ্য হলো চাকরিক্ষেত্রে মেয়েদের যোগ্যতা প্রকাশে উৎসাহিত করা। কারণ পড়াশোনায় মেয়েরা এগিয়ে গেলেও চাকরিক্ষত্রে এই উন্নতির ঢাল বরাবরের মতই নিম্নমুখী, কিছুকিছু ব্যতিক্রম ছাড়া। এটা অনেক সাধারণ একটা ঘটনা হয়ে দাঁড়িয়েছে যে, উচ্চশিক্ষা নিয়ে তারা জব সেক্টরে আসছে না। যা উচ্চশিক্ষার মূল উদ্দেশ্যের সাথেই সাংঘর্ষিক।

এখানে অংশগ্রহণকারীদের সবচেয়ে বড় পাওনা যেটা ছিলো তা হলো তারা এখানে বিভিন্ন ক্ষেত্রে অনেক সফল নারী এবং নারীর ক্ষমতায়নে নিরলস কাজ করা অনেক মানুষের সান্নিধ্য পেয়েছেন, এবং তাদের সাথে পারস্পরিক অভিজ্ঞতা বিনিময় করেছেন।

দুদিনের এই প্রোগ্রামের প্রথম দিন ৩টি সেশনে শেষ হয়।

প্রথমদিনের সেশনগুলো হলো:

১। উদ্বোধন:

১৪ তারিখ সকাল ৯টায় অনুষ্ঠান উদ্বোধন করেন বুয়েটের মাননীয় ছাত্রকল্যাণ পরিচালক অধ্যাপক ডঃ দেলোয়ার হোসেন। তারপর শুরু হয় মূল প্রোগ্রাম।

২। প্লেনারি সেশনঃ

অনুষ্ঠানের এই পর্যায়ে এসে বিভিন্ন ক্ষেত্রে সফল নারী এবং নারী অধিকারের জন্য কাজ করে যাওয়া ব্যক্তিবর্গ বক্তব্য রাখেন।

৩। অভিজ্ঞতা বিনিময়ঃ

প্রোগ্রামের সবচেয়ে চমৎকার সেশন ছিলো এটি। সামনে যারা ইঞ্জিনিয়ার হয়ে বেরুচ্ছে কিংবা যারা ইঞ্জিনিয়ার হতে ইচ্ছুক তারা এবং নিজ নিজ ক্ষেত্রে সফল ইঞ্জিনিয়ারদের পারষ্পরিক অভিজ্ঞতা বিনিময়ের এক উপলক্ষ এনে দেয় এই সেশন।

আর দ্বিতীয়দিন ৪টি সেশনে শেষ হয়। ৪ টি আলাদা সেশনে ৪ জন আলাদা আলাদা বক্তা বিষয়ভিত্তিক আলোচনা করেছেন। বক্তারা ছিলেন:

১। ত্রিনা ভট্টাচার্য, সহযোগী পরিচালক, PwC (India)

বিষয়: How to prepare for global job market

২। জাভেদ পারভেজ, Vice President, Robi Axiata।

বিষয়: Become the greatest leveraging strenght of your strength

৩। সিদ্দিক আবু জাফর, South Asian Regional Director, SMEC International pty LTD।

বিষয়ঃ Job opportunity at SMEC

৪। এজাজুর রহমান, Managing Director, Mind Mapper।

বিষয়ঃ Combining passion with profession

এবারের এই কংগ্রেসে উইমেন চ্যাপ্টার নামে বুয়েট ক্যারিয়ার ক্লাবের একটি নতুন শাখাও খোলা হয়। উইমেন চ্যাপ্টার উদ্বোধন করেন বুয়েট ক্যারিয়ার ক্লাবের মডারেটর অধ্যাপক রাগীব আহসান। উইমেন চ্যাপ্টারের কাজ হলো নারীদের মুখোমুখি হওয়া নিত্যনতুন সমস্যাকে আলোকপাত করে এগুলোর উপর প্রতি সেমিস্টারে অন্তত ১টি করে হলেও প্রোগ্রাম করা।

প্রোগ্রামের এক পর্যায়ে কথা হলো এক অংশগ্রহণকারীর সাথে। “আমি কলেজে পড়ি, কিন্তু এমন একটা প্রোগ্রামের খবর পেয়ে আসার লোভ সামলাতে পারলাম না। সাথে আমার বাবাও এসেছেন। আমার ইচ্ছা বড় হয়ে ইঞ্জিনিয়ার হবো। এখানে ইঞ্জিনিয়ারিং সেক্টরের অনেক সফল মানুষদের সাথে দেখা হয়ে নিজেকে খুবই উৎসাহিত লাগছে। অনেকের সাথে কথা বলে সঠিক দিকনির্দেশনা পেয়েছি।”

আরো কথা হলো প্রোগ্রামের আয়োজক BUET Career Club(BCC) এর প্রেসিডেন্ট হসান উল্লাহ জাওয়াদের সাথে। “উচ্চশিক্ষায় নারীদের অংশগ্রহণ দিন দিন বৃদ্ধি পেলেও সে তুলনায় কর্মক্ষেত্রে তাদের অংশগ্রহণ অনেকাংশেই কম। যদিও তাদের কেউ কেউ কর্মক্ষেত্রে প্রবেশ করে কিন্তু ক্যারিয়ার এর মাঝপথে তারা ঝরে পড়ে।

ইঞ্জিনিয়ারিং সেক্টরে অবস্থা আরো করুন। কারণ ইঞ্জিনিয়ারিং এখনো পুরুষ নিয়ন্ত্রিত। বর্তমানে প্রায় ৩০ শতাংশ ইঞ্জিনিয়ারিং শিক্ষার্থী নারী। গ্র্যাজুয়েশন করার পর তারা নানা কারণে কর্মক্ষেত্রে প্রবেশ করতে চান না বা করতে পারেন না।

তাই নারী ইঞ্জিনিয়ারিং শিক্ষার্থীদের তাদের ক্যারিয়ার গঠনে এবং সাফল্যের চুডায় পৌঁছাতে উৎসাহিত করতে BUET Career Club(BCC) ক্লাব ‘Women Engineers’ Congress 2016’  আয়োজন করার উদ্যোগ নেয়।

এর সাথে উইমেন চ্যাপ্টার নামে নতুন একটি শাখা উদ্ভোধন করি যেটা শুধু নারীদের জন্য প্রতি সেমেস্টারে অন্তত একটি প্রোগ্রাম আয়োজন করবে। আমাদের এই প্রোগ্রাম হয়ত একটি ক্ষুদ্র প্রচেষ্টা, তবে আমি আশা করবো ক্ষুদ্র হলেও যেন ভবিষ্যতে এই প্রচেষ্টাগুলো যেন থেমে না থাকে।”

ক্যাম্পাস প্রতিনিধি


More news