খাওয়ার পর যে কাজগুলো কখনই করবেন না



খাবার গ্রহণের পরপরই হয়ত একটু চা খাওয়া, কিংবা কিছুক্ষণ ঘুমিয়ে নেওয়ার মত অনেক কাজই আমরা করে থাকি। হোক সেটা ইচ্ছাকৃত বা অভ্যাসবশতকিন্তু আমরা জানি কি? খাবারের পর এইরকম কিছু কাজ আমাদের শরীরের জন্য অনেক ক্ষতিকর। চলুন জেনে নেয়া যাক, খাবারের পর কোন কাজগুলো কখনই করা ঠিক না।

ধূমপান

বিশেষজ্ঞদের মতে খাবারের পর কখনই ধূমপান করা ঠিক না। খাবারের পরপরই একটি সিগারেট গ্রহণ ১০টি সিগারেট গ্রহণের সমান। সিগারেট রক্তে বিদ্যমান অক্সিজেন চলাচলে বাধাপ্রদান করে পরিপাকতন্ত্রকে দুর্বল করে দেয়। ফলে হজম প্রক্রিয়া ধীরগতির হয়ে যায়।

ফল খাওয়া

খাবার গ্রহণের পরপরই ফল খেলে পরিপাকতন্ত্র সহজেই হজমে অংশগ্রহণ করতে পারে না। ফলে পাকস্থলীতে জমে থাকা ফল হজম হতে না পারায় গ্যাস ও বিষক্রিয়ার সৃষ্টি হয়। তাই ফল খেতে হবে খালি পেটে কিংবা খাবার গ্রহণের দুই ঘণ্টা আগে বা পরে।

চা পান করা

চা খাবারের প্রোটিনের মাত্রাকে বাড়িয়ে তুলে আয়রন উপাদানকে বাধা প্রদান করে হজম প্রক্রিয়াকে মন্থর করে দেয়। যাদের শরীরে রক্তের পরিমাণ কম তাদের জন্য এটা আরও বেশি ক্ষতিকর। তাই খাবার গ্রহণের অন্তত দেড় থেকে দুই ঘন্টা পর চা পান করা উচিত।

গোসল করা

খাবার গ্রহণের পর হজম প্রক্রিয়ার জন্য পরিপাকতন্ত্রের দিকে রক্ত প্রবাহ বেড়ে যায়। কিন্তু গোসল করলে পানি শরীরের তাপমাত্রায় পরিবর্তন আনে এবং সমস্ত শরীরে রক্ত প্রবাহকে দ্রুত করে। ফলে পরিপাকতন্ত্রে প্রয়োজনীয় রক্ত প্রবাহ বাধাপ্রাপ্ত হয় এবং হজমে ব্যাঘাত ঘটে।

ব্যায়াম করা

খাবারের পর ব্যায়াম করলে অন্ত্রে প্রেসার পড়ায় হজম প্রক্রিয়া বাধাপ্রাপ্ত হয়। আরেকটি উল্লেখযোগ্য খারাপ দিক হলো খাবারের পর ব্যায়াম দেহের ওজন বাড়াতে সাহায্য করে।

ঘুম

খাবারের পর একটু ঘুম প্রায় সবারই অভ্যাস। কিন্তু এই অভ্যাস শরীরের জন্য ক্ষতিকর। ঘুমালে পরিপাকতন্ত্র এবং গ্যাস্ট্রিক গ্রন্থির কার্যকারিতা মন্থর হয়ে যায় এবং হজম প্রক্রিয়াও বাধাপ্রাপ্ত হয়।

যদি আপনার এরকম কোন অভ্যাস থেকে থাকে, তাহলে নিশ্চয়ই আজ থেকে আর এ অভ্যাসে ব্রত থাকবেন না?

ফিটনেস’সডক্টর ডট পিএইচ অবলম্বনে।


More news