নেদারল্যান্ডের স্বাস্থ্য দপ্তর সুত্রের খবর, মুলত যাঁদের বয়স ৬০ বছরের বেশি তাঁদের উপরই প্রাথমিকভাবে এই ওষুধ প্রয়োগ করে দেখা হবে। কারণ, অনাক্রম্যতা দুর্বল হয়ে পড়ার কারণে এদের মধ্যে সংক্রমণের সম্ভাবনা বেশি থাকে। তবে সাধারণ নাগরিকদের উপর এই ওষুধ প্রয়োগ করা হবে না। BCG (Bacillus Calmette-Guérin) প্রয়োগ করা হবে শুধু চিকিৎসক এবং চিকিৎসা কর্মীদের উপর। কারণ, করোনা রোগীদের নিয়ে কাজ করার ফলে এদের মধ্যেই সংক্রমণের সম্ভাবনা বেশি। নেদারল্যান্ডের অন্তত ১০০০ জন চিকিৎসা কর্মীর উপর এই বিসিজি টিকা প্রয়োগ করা হবে। ভাল ফলাফল পেলে তা প্রয়োগ করা হবে অন্য নাগরিকদের শরীরেও। ভারতেও করোনা রুখতে এই টিকাটি পরীক্ষা করা হতে পারে। দেশের একটি বেসরকারি টিকা প্রস্তুতকারক সংস্থা পরীক্ষামুলকভাবে এই টিকা প্রয়োগ করতে আগ্রহী। সংস্থাটি BCG‘র মানোন্নয়নও শুরু করে দিয়েছে।

Leave a Reply

three × three =